A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

A PHP Error was encountered

Severity: Warning

Message: Cannot modify header information - headers already sent by (output started at /home/webheart/public_html/sundayline/system/core/Exceptions.php:185)

Filename: libraries/Session.php

Line Number: 675

বাংলাদেশের পথে বেলুচিস্তান?
সংবাদ-শিরোনাম:
বাংলাদেশের পথে বেলুচিস্তান?

৪১ বছর আগে পাকিস্তান থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধের পর একাত্তরের ১৬ ডিসেম্বর এ দেশের মানুষের কাঙ্ক্ষিত বিজয় অর্জিত হয়। জন্ম নেয় স্বাধীন বাংলাদেশ। বাংলাদেশের স্বাধীনতা অর্জনের ৪১ বছর পর পাকিস্তানের আরেকটি অংশ বেলুচিস্তান যেন আর্থসামাজিক ও রাজনৈতিক বাস্তবতায় একই ভাগ্য বরণ করতে যাচ্ছে।
বাংলাদেশের বিজয়ের ৪১তম পূর্তিতে আজ রোববার পাকিস্তানের ‘দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউন’ পত্রিকার ব্লগে দেশটির তরুণ মেডিকেল শিক্ষার্থী আবদুল মাজেদ এসব কথা লিখেছেন।
মেডিকেলের শেষ বর্ষের এই শিক্ষার্থীর আগ্রহের মূলে রয়েছে ইতিহাস, রাজনৈতিক অর্থনীতি ও সাহিত্য। পাকিস্তানের নতুন প্রজন্মের এই প্রতিনিধি তাঁর লেখায় অকপটে স্বীকার করেছেন, পূর্ব পাকিস্তান থেকে কেন্দ্রে বিপুল পরিমাণ রাজস্ব আসত। কিন্তু সেখানে উন্নয়ন ছিল সীমিত। প্রশাসন ও আমলাতন্ত্রে পূর্ব পাকিস্তানের অংশগ্রহণও ছিল হাতে গোনা। ১৯৭০ সালের সাধারণ নির্বাচনে জাতীয় পরিষদে আওয়ামী লীগ সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জনের পরপরই ক্ষমতা হস্তান্তর নিয়ে শুরু হয়েছিল প্রাসাদ ষড়যন্ত্র। সংখ্যাগরিষ্ঠ দলের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তরের পরিবর্তে পূর্ব পাকিস্তানে চালানো হয় সামরিক অভিযান। আর ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর পাকিস্তানি বাহিনী পরাজয় স্বীকার করার পরিপ্রেক্ষিতে বাংলাদেশের বিজয় অর্জনের মাধ্যমে জন্ম নেয় স্বাধীন বাংলাদেশ।
আবদুল মাজেদ লিখেছেন, ওই ঘটনার ৪১ বছর পর আজ সেসব পুরোনো কথা বলার একটাই কারণ, সাবেক পূর্ব পাকিস্তানের মতো বর্তমান পাকিস্তানের আরেকটি অংশ বেলুচিস্তান একই ভাগ্য বরণ করতে যাচ্ছে। যদিও বেলুচিস্তান পাকিস্তানের বৃহত্তম অংশ, বেলুচিস্তানের প্রাকৃতিক সম্পদ পাকিস্তানের প্রয়োজনে ব্যবহূত হচ্ছে, তবু বেলুচিস্তানের উন্নয়ন নিয়ে পাকিস্তান সরকারের কোনো মাথাব্যথা নেই। বরং সেখানে চলছে নিপীড়ন। বেলুচিস্তানের এ বৈষম্য ও সমস্যার সমাধানে নেই কোনো সমঝোতা বা জাতীয় সংলাপের উদ্যোগ। এই একই আচরণ সাবেক পূর্ব পাকিস্তানের বেলায়ও করেছিল তত্কালীন পশ্চিম পাকিস্তানের নেতারা।
আবদুল মাজেদ তাঁর লেখার উপসংহার টানতে গিয়ে বলেছেন, আরেকটি বাংলাদেশ না চাইলে পাকিস্তানের উচিত বেলুচিস্তানকে জানা, সেখানকার সমস্যা নিয়ে আলোচনা করা।


সর্বশেষ সংবাদ সমুহ: